Sunday, 7 June 2020

Essay on Lottery Winning in Bengali Language for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

Essay on Lottery Winning in Bengali Language for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

আমার কাকা একজন দরিদ্র ক্লার্ক ছিলেন। তার ছয়টি বাচ্চা ঠিকমতন খেতে বা পরতে পারতাে না। সংসারের ভার বহন করা তাঁর কাছে কষ্টদায়ক হয়ে উঠেছিল। তিনি প্রায়ই মনমরা হয়ে থাকতেন। কিন্তু এত ব্যর্থতা সত্বেও তার ভালাে প্রবৃত্তিগুলি নষ্ট হয়নি। তিনি ছিলেন সাহায্যকারী এবং আমায়িক। তিনি আমার বাবার থেকে টাকা ধার করতেন কিন্তু তা পরিশােধ করতে পারতেন না। তিনি তার ভবিষ্যৎ এবং মেয়েদের বিয়ে নিয়ে ভয় প্রকাশ করতেন। তিনি পণপ্রথার নিন্দা করতেন। বিয়েতে কত খরচ হতে পারে সেই নিয়ে তিনি একটা হিসাব করতেন এবং তিনি প্রভিডেন্ট ফান্ড থেকে কয়েক লক্ষ টাকা পাবেন সে কথা চিন্তা করেই নিশ্চিন্তে থাকতেন।
কিন্তু একদিন ভাগ্য সত্যিই তার উপর প্রসন্ন হল। একদিন তিনি একটি লটারী জিতলেন। সেদিন সম্পূর্ণ পরিবার আনন্দে নেচে উঠেছিল। আমার বাবা তার ভাইকে সাহায্য করার জন্য ভগবানকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করলেন। কিন্তু কয়েক দিন বাদে, তিনি টাকাটা পাবেন কি পাবেন না সেই নিয়ে দুশ্চিন্তা করতে লাগলেন। যাইহােক তিনি পুরস্কার স্বরূপ পঞ্চাশ লক্ষ টাকা হাতে পেয়েছিলেন।
খুব শীঘ্রই আমার কাকা একজন অন্য মানুষে পরিণত হলেন। তাঁর বাচ্চারা নূতন বাড়ীতে যাওয়ার জন্য কৃথাবার্তা বলতে শুরু করেছিল। তিনি নিজেও একটা বাড়ী কেনার জন্য আগ্রহী হয়ে উঠেছিলেন। তিনি প্রত্যেক বাড়ীর দাম জিজ্ঞাসা করতেন এবং গরিবরা যে সমস্ত স্থানে বসবাস করতাে সেখানকার বাড়ীগুলিকে দেখে অবজ্ঞা প্রকাশ করতেন। তিনি তাঁর বুদ্ধি, সততা এবং কঠোর পরিশ্রম নিয়ে দম্ভ প্রকাশ করতেন। তাঁর আমাদের বাড়ীতে ঘনঘন আসা বন্ধ হয়ে গেছিল কারণ আমার বাবা তাদের বাড়ী যাচ্ছে কিনা তিনি সেটা লক্ষ্য করতে শুরু করেছিলেন। তিনি চাকরি থেকে অবসর নেওয়ার চিন্তা করলেন কারণ সেটি অনেক নিম্ন স্তরের ছিল। তিনি ব্যবসা শুরু করার জন্য মনস্থির করলেন। তিনি বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা নিয়ে অনেক লােকের সঙ্গে আলােচনা করলেন। তিনি ব্যবসায় অনেক টাকা খাটাবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। ব্যবসার প্রকৃতি জানার জন্য তিনি বিভিন্ন ধরনের কারখানায় ঘােরাফেরা করতেন। ব্যবসায় পয়সা খাটাতেই হবে এবং এর লাভ নির্ভর করে সম্পূর্ণ ঝুঁকির উপর।
যদি কেউ তাকে কোন পরামর্শ দিতেন তবে তিনি সন্দেহ প্রকাশ করতেন। তিনি সমস্ত মানুষকেই দুবৃত্ত বলে মনে করতেন এবং মনে করতেন যে সকলেই তাঁর কাছ থেকে অর্থ চায়। তাঁর আত্ময়ীরা তাদের কন্যাদের খুব কম পন দিয়েছিল বলে তিনি তাদের সমালােচনা করতেন। তিনি একটা শপথ গ্রহণ করেছিলেন – তিনি অল্প পন দেবেনও না আর অল্প পন গ্রহণও করবেন না। যে সমস্ত মানুষেরা তাকে তার পুরানাে দিনের কথা মনে করিয়ে দিতেন তাদের তিনি ঘৃণা করতেন। তিনি তাঁর পুরানাে বন্ধু, পুরানাে দিন এবং পুরানাে সমাজের সাথে সমস্ত রকম সম্পর্ক ছিন্ন করি দিতে চেয়েছিলেন।

SHARE THIS

Author:

I am writing to express my concern over the Hindi Language. I have iven my views and thoughts about Hindi Language. Hindivyakran.com contains a large number of hindi litracy articles.

0 comments: