Bengali Essay on "Childhood memories", "Swadhinata Dibas", "আমার শৈশবের স্মৃতি রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

Admin
0
Childhood memories Essay in Bengali Language: In this article, we are providing আমার শৈশবের স্মৃতি রচনা for students. Bengali Essay on Childhood memories.

Bengali Essay on "Childhood memories", "Swadhinata Dibas", "আমার শৈশবের স্মৃতি রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

প্রত্যেকের জীবনেই শৈশবের স্মৃতি একটা বিশেষ মূল্য রাখে। একজন মানুষের জীবন যত বড়ই হােক না কেন তার সবচেয়ে সুখকর মুহূর্ত থাকে শৈশব কাল। কোন শিশুর উপরেই কাজের চাপ বা উৎকণ্ঠা থাকে না। বিশ্বব্যাপী জীবনে যে নােংরামি বা অশ্লীলতা লুকিয়ে থাকে তা একটা শিশুকে স্পর্শ করে না। তার জীবনের সমস্ত উদ্দেশ্যই খাদ্য, পানীয় এবং খুশী’র মধ্যে লুকিয়ে থাকে। শৈশবকালের মধ্যে যে সৌন্দর্য লুকিয়ে থাকে, তাকে কখনই ভােলা যায় না। এই স্মৃতি প্রতিটি মানুষের জীবনে সারা জীবন ধরে একটা বিশাল প্রভাব সৃষ্টি করে।
এই একই পথের যাত্রী আমিও। যখনই আমি শৈশবকালের কথা মনে করি তখনই আমার প্রাণে এক উৎফুল্লতা ছেয়ে যায়, এই সুখকর মুহূর্তটি আমার জীবন থেকে খুব দ্রুতই সরে গেছে।
শৈশবকালে আমার মধ্যে কোন হুঁশ এবং ভয় কাজ করত না। আমি খােলা মাঠে একটা হরিণ শাবকের মতন ছুটে বেড়াতাম এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্যকে উপভােগ করতাম।
সেই সময়কার এমন কিছু ঘটনা আছে যা আজও আমার মনের মণিকোঠায় লুকিয়ে আছে। পাঁচ বছর বয়েস আমার ভয়ঙ্কর রকমের টায়ফয়েড হয়েছিল। সেই সময় চিকিৎসা বিজ্ঞান এত উন্নতি ছিল না। যথাযথ চিকিৎসার অভাবে আমি একটা কঙ্কালে পরিণত হয়েছিলাম। তারপর দীর্ঘকাল ধরে প্রচুর ঔষধপত্র চলার পর পুনরায় দাঁড়াতে পেরেছিলাম। ডাক্তার আমাকে কোন পাহাড়ী অঞ্চলে যাওয়ার জন্য পরামর্শ দিয়েছিল। ফলে আমার বাবা আমাকে শিমলায় নিয়ে গেছিলেন।
একদিন, আমাদের রাস্তা দিয়ে একজন জাদুকর দুটি বাঁদর নিয়ে যাচ্ছিল। আমাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করানাের জন্য বাঁদরের খেলা দেখাচ্ছিল। পুরুষ বাঁদরটি স্ত্রী বাঁদরের প্রেমে পড়েছিল। কিন্তু স্ত্রী বাঁদরটি পুরুষ বাঁদরকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে। পুরুষ বাঁদরটি একটা রঙিন পােশাক পরে শ্বশুর বাড়ী যায়। সে এমন রঙ্গকৌতক করেছিল যে আমি সত্যিই আকর্ষিত হয়ে পড়েছিলাম। জাদুকরটি যে খেলা দেখিয়েছিল আমি সত্যিই সেটা উপভােগ করেছিলাম।
অপর যে ঘটনাটি আমার স্মৃতিপটে আজও উজ্জ্বল হয়ে আছে সেটা হল সাঁতারের অভিজ্ঞতা। একটি রবিবার আমি আমার বন্ধুদের সাথে ওখলায় পিকনিক করতে গেছিলাম। কিছু ছেলে সত্যিই খুব ভালাে সাঁতার জানতাে কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত আমি সাঁতারের কিছুই জানতাম না। আমার বন্ধুরা জলের মধ্যে ডুব দিচ্ছিল, আমিও তাদের দলেই ছিলাম। কিন্তু হঠাৎ করে আমি স্রোতের মুখে পড়ে যাই আর সেই স্রোত আমাকে খুব দ্রুত ভাসিয়ে নিয়ে যাচ্ছিল। সেখানে আমার ডুবে মরে যাওয়ার সমস্ত রকম সম্ভাবনা ছিল কিন্তু আমার এক বন্ধুর নির্ভীকতাই আমাকে রক্ষা করেছিল। সে আমাকে স্রোতের মুখ থেকে বার করে নদীর পারে নিয়ে যায়। আমাকে নূতন জীবন দানের জন্য আমি সত্যিই তার কাছে কৃতজ্ঞ।
শৈশবের দিন এখনও আমার মনের মণিকোঠায় উজ্জ্বল হয়ে আছে। আমি এই আনন্দময় দিনগুলিকে আবার ফিরে পেতে চাই কিন্তু আমি জানি দিন হাওয়ার মতন বয়ে যায়। আমি এই দিনগুলিকে আর কখনই উপভােগ করতে পারব না।
এই সেই সুন্দর ক্ষণ যেগুলিকে লেখক এবং কবিরা বিভিন্ন ভাবে বর্ণনা করে গেছেন। অতীতের এই চিন্তা আমাদেরকে বিষন্নতার মধ্যে নিমজ্জিত করে। ইংল্যান্ডের বিখ্যাত কবি এবং প্রকৃতি প্রেমিক ওয়ার্ডসওয়াথ তাঁর কবিতাগুলিতে এই শৈশবের স্মৃতিই রােমন্থন করে গেছেন। তাঁর মতানুসারে শৈশবকাল আনন্দ, উৎকণ্ঠা এবং উপভােগের দ্বারা পূর্ণ থাকে।
আমি যত বড় হয়েছি, শৈশবের এই দিনগুলির প্রতি আমার অনুরাগ এবং আকর্ষণ ততই বৃদ্ধি পেয়েছে। আমি জানি, শৈশবের এই আনন্দ ফিরে পাওয়ার যে বাসনা আমার মনের মধ্যে আছে তা কখনই পূর্ণ হবে কারণ যখন আমি ছােট ছিলাম তখনই এই সুন্দর দিনগুলি অতিবাহিত হয়ে গেছে।

Post a Comment

0Comments
Post a Comment (0)

#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !