Bengali Essay on "Morning Walk", "প্রাতঃভ্রমণ বাংলা অনুচ্ছেদ রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

Admin
0
Essay on Morning Walk in Bengali Language: In this article, we are providing প্রাতঃভ্রমণ বাংলা অনুচ্ছেদ রচনা for students. Bengali Essay / Paragraph on Morning Walk.

Bengali Essay on "Morning Walk", "প্রাতঃভ্রমণ বাংলা অনুচ্ছেদ রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

খুব ভাের বেলাতে বিছানা ছেড়ে উঠে পড়াটা খুব সহজ কাজ নয়। আমি প্রতিদিনই প্রায় রাত এগারােটার সময় শুতে যাই। ইংরাজীতে একটা অতি প্রাচীন প্রবাদ আছে "early to bed and early to rise." আমার বাবা একজন কঠোর নিয়ম পরায়ন মানুষ। তিনি আমাকে খুব সকালে ঘুম থেকে তুলে দেন ও অঙ্ক করাতে বসেন। একদিন আমি তাকে প্রাতঃভ্রমণ ফলাফল সম্পর্কে প্রশ্ন করেছিলাম। তিনি আমাকে সঙ্গে সঙ্গে পােশাক পরে প্রাতঃভ্রমণে বেরনাের জন্য নির্দেশ দেন।

আমাদের এলাকায় যে পার্কটি আছে, তার জন্য আমাদের এলাকাটি যথেষ্ট খ্যাতি অর্জন করেছে। আমি পার্কে গিয়ে সেখানে অনেক লােককে ঘুরতে দেখে সত্যিই বিস্মিত হয়েছিলাম। ঠাণ্ডা বাতাস বইছিল। বাতাসের স্পর্শে সবুজ পাতা গুলি যেন ফিসফিস করে কথা বলছিল। পাখীরা তাদের বাসা ত্যাগ করে বিভিন্ন দিকে উড়ে যাচ্ছিল। সূর্যোদয়ের সেই দৃশ্য ছিল অপূর্ব। সূর্যের প্রথম কিরণ যখন। পৃথিবীকে স্পর্শ করে তখন এক অপূর্ব দৃশ্যের সৃষ্টি হয়। প্রথমে সূর্যটাকে একটি কমলা বলের মতন দেখতে লাগে কিন্তু এক অপূর্ব উজ্জ্বলতা সেটিকে আচ্ছাদিত করে রাখে। 

পার্কের এক কোণায় কতগুলি বাচ্চা একটা বল নিয়ে খেলা করছিল। কতগুলি ছেলে গােল করে দৌড়াচ্ছিল। অপরদিকে অনেক মানুষ বিভিন্ন রকম ব্যায়াম করছিল। আর এক কোণায় যােগার শিক্ষক যােগা শেখাচ্ছিলেন। শিক্ষার্থীরা নিজেদের হাত ও পায়ের মধ্যে সাম্যতা বজায় রেখে সেগুলিকে ঘােরাচ্ছিল। শিক্ষক হাসতে বলছিলেন, তারাও খুব উচ্চস্বরে হাসতে শুরু করে কিন্তু আমি তাদের হাসি দেখে নিজের হাসি চেপে রাখতে পারিনি। পার্কের এক কোণায় একটি পতাকা উড়ছিল। কয়েকজন বৃদ্ধ এবং যুবক সেটিকে সেলাম জানিয়ে দেশাত্ববােধক গান গাইছিল। তারা সকলেই সাদা। শার্ট ও খাকি রং-এর হাফপ্যান্ট পরেছিলেন। তারা সকলেই আরএএস-এর অন্তর্ভুক্ত এবং তারা যুদ্ধের কৌশল শিখছে।।

আমার বাবা আমাকে পার্কটিকে দুপাক ঘুরে আসতে বলেছিলেন। খানিকটা যাওয়ার পরেই আমি বুঝতে পেরেছিলাম দুপাক ঘােরা খুব সহজ কাজ নয়। খানিকটা গিয়ে আমি ফিরে এসে বাবাকে বলেছিলাম অঙ্ক করার জন্য সামান্য সময় বাকি আছে। সুতরাং যে কোন একটা কাজ হবে, নয় হাঁটা, নয়তাে অঙ্ক। বাবা আমার কথা মেনে নিয়েছিলেন এবং আমরা বাড়ি ফিরে এসেছিলাম।

Post a Comment

0Comments
Post a Comment (0)

#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !