Bengali Essay on "Diwali Festival", "Diwali Bangali Rachana", "আলোর উৎসব দীপাবলি বাংলা রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

Admin
0
Essay on Diwali Festival in Bengali Language: In this article, we are providing আলোর উৎসব দীপাবলি বাংলা রচনা for students. Diwali Rachana in Bengali.

Bengali Essay on "Diwali Festival", "Diwali Bangali Rachana", "আলোর উৎসব দীপাবলি বাংলা রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

হিন্দুদের কয়েকটি উৎসবের মধ্যে দীপাবলী অন্যতম। সারা ভারতবর্ষ জুড়ে দীপাবলী মহানন্দে উদ্যাপন করা হয়। এই উৎসবের সাথে অনেক পৌরাণিক কাহিনী সংযােজিত আছে। রাবণ এবং ভগবান শ্ৰী রামের যুদ্ধে রামের জয়ই এই উৎসবের মূল বিষয়। প্রকৃত পক্ষে এটি দুষ্টের দমন ও সৃষ্টিই পালনকে সূচিত করে এবং একে ঘিরে আছে জয়ের আনন্দ।

দীপাবলীতে সম্পূর্ণ দেশ জুড়ে এক আনন্দের জোয়ার প্লাবিত হয়। মানুষেরা তাদের কাছের মানুষদের নিমন্ত্রণ করে। এই দিনে মানুষের বাড়িতে মিষ্টি তৈরি করা হয় এবং তা বন্ধু ও আত্মীয়দের মধ্যে ভাগ করে দেওয়া হয়। দিপাবলীর দিন মানুষরা আনন্দে এবং কৌতুকে মেতে ওঠে। 

উচ্চ থেকে নিম্ন শ্রেণীর সকল মানুষই সেদিন নূতন পােশাক পরিধান করে। বাচ্চা এবং যুবারা সেদিন যথেষ্ট আকর্ষণীয় পােশাক পরিধান করে। এই দিন রাতে প্রচুর আতসবাজী পােড়ানাে হয়। অন্ধকার রাতে বিভিন্ন রকম বাজীর আলাে এক অপূর্ব রূপ সৃষ্টি করে। 

উৎসবের একটা সুন্দর রূপ আছে। প্রত্যেকে সুন্দর পােশাক পরিধান করে আনন্দে মেতে ওঠে। অনেকে এই দিনটি উদ্দীপনার সাথে পালন করে। অনেকে এই দিন জুয়া খেলে। দীপাবলীর উৎসবে অনেক মানুষই পার্টীতে জুয়া খেলে কিন্তু তারা জুয়ারি না, তারা হয়তাে জীবনে আর কোন দিনই জুয়া খেলবে না। রাতে প্রত্যেক মানুষ তার নিজের বাড়িতে লাইট, প্রদীপ, মােমবাতি এবং টুনিলাইট জ্বালিয়ে থাকেন। তারা খাদ্য এবং পানীয়ের মাধ্যমে দিনটিকে উপভােগ করে। শহর এবং ঘরগুলি লাইট দ্বারা সুসজ্জিত করা হয় এবং চতুর্দিক থেকে বাজীর আওয়াজ কানে আসে। শুধুমাত্র বাড়িগুলিই নয় সরকারী অফিস এবং বেসরকারী সংস্থাগুলিকেও সুন্দরভাবে সাজানাে হয়। এই দিন সন্ধ্যার রূপ সত্যিই অসাধারণ থাকে।

অনেক হিন্দু দীপাবলী উদ্যাপন করার আগে লক্ষ্মী পূজা করে থাকেন। হিন্দুরা লক্ষ্মী দেবীকে সম্পদের দেবী বলে মনে করে। তাই তারা লক্ষ্মী দেবীকে নিজের ঘরে আসার জন্য আমন্ত্রণ জানান।

দীপাবলী সমগ্র দেশের উৎসব, দেশের প্রত্যেক প্রান্তে এটি ধুমধামের সাথে উদযাপিত হয়। সুতরাং এই উৎসবটি প্রতিটি মানুষের মধ্যে সাড়া ফেলে দেয়। এটি ঐক্যবদ্ধতার চিহ্ন। ভারতে প্রায় হাজার বছর ধরে এই উৎসব পালন করা হচ্ছে এবং আজও তাতে এতটুকু ঘাটতি হয়নি। প্রত্যেক ভারতবাসী এই উৎসবটিকে খুবই শ্রদ্ধা করে এবং ভালােবাসে।

Post a Comment

0Comments
Post a Comment (0)

#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !