Bengali Essay on "The Last Day at School", "স্কুলের শেষ দিনের বিদায় লেখা অনুচ্ছেদ রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

Admin
0
Essay on The Last Day at School in Bengali Language: In this article, we are providing স্কুলের শেষ দিনের বিদায় লেখা অনুচ্ছেদ রচনা for students. Bengali Essay on The Last Day at School.

Bengali Essay on "The Last Day at School", "স্কুলের শেষ দিনের বিদায় লেখা অনুচ্ছেদ রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

সিনিয়ার সেকেন্ডারি এক্সামিনেশানে উত্তীর্ণ হওয়ার পর যখন স্কুল থেকে চিরকালের জন্য বিদায় নিয়েছিলাম, সেই সময়টা আমার স্মৃতিপটে সারাজীবন উজ্জ্বল হয়ে থাকবে। স্কুল জীবনের শেষ সময়টাকে সুন্দরস্মৃতিতে পরিণত করার জন্য একাদশ শ্রেণীর ছাত্ররা আমাদেরকে বিদায় - সম্ভাষণ জানিয়েছিল। এই সমস্ত অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করার দায়িত্ব ছিল আমাদের প্রধান শিক্ষকের উপর। এই অনুষ্ঠানটি একটি রবিবারে উদযাপিত হয়েছিল।
বেলা তিনটের সময় স্কুলে যাওয়ার পর দেখলাম, দায়িত্বে থাকা ছাত্ররা সমস্ত কিছু সুন্দরভাবে গুছিয়ে ফেলেছিল। স্কুলের হল ঘরটি বিভিন্ন রকম চার্ট পােস্টার, ফুল এবং প্লাকেট দ্বারা সুসজ্জিত ছিল। প্রধান শিক্ষক এবং স্কুলের ইন্সপেক্টরের সামনে থাকা টেবিলটিকে খুব সুন্দর ফুলদানী দিয়ে সাজানাে হয়েছিল। সেখানে বহিরাগত ছাত্র, স্কুলের অন্যান্য শিক্ষক কর্মচারী এবং একদাশ শ্রেণীর ছাত্রদের জন্য প্রচুর চেয়ারের বন্দোবস্ত ছিল।
অনুষ্ঠান শুরু হয়েছিল বেলা ৪টের সময়। প্রায় এক ঘন্টা ধরে কোন রকম বাধা নিষেদের গণ্ডী না মেনে আমরা শুধু নির্মল আনন্দই উপভােগ করেছিলাম। বেলা ৫টার সময় অনুষ্ঠান প্রায় শেষের মুখে উপনীত হয়েছিল। এই অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পরেই শুরু হয়েছিল বিদায় সম্ভাষণের অনুষ্ঠান। একাদশ শ্রেণীর ছাত্র শ্রী অনিল কুমার বিদায়-সম্ভাষণের উপর একটা সহানুভূতিশীল এবং আবেগ প্রবণ বক্তৃতা দান করেছিল। সেই বক্তৃতায় আমাদের দীর্ঘকালীন স্কুল জীবনের বিভিন্ন দিকের উপর সে আলােকপাত করেছিল। এই বক্তৃতায় সে খুবই শােভনতার সাথে আমাদের প্রশংসা করেছিল। এই বক্তৃতার মধ্যে সে নিছক হাসি এবং আনন্দেরও সমাবেশ ঘটিয়েছিল। অনিল কুমার আমাদের ভবিষ্যৎ-এর সফলতারও কামনা করেছিল। তার বক্তৃতা সত্যিই হৃদয়কে নাড়া দিয়েছিল।
তার বক্তৃতা সমাপনের পর, আমি আমাদের ক্লাসের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধেয় প্রধান শিক্ষক এবং পরিচালক বর্গকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করি। আমার বক্তৃতায় আমি এই অনুষ্ঠান পরিচালনার জন্য পরিচালক বর্গকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাই। এই বক্তৃতা দানের সময় আমার মনে এক মিশ্র অনুভূতির সৃষ্টি হয়েছিল। আমার মন দুঃখে পরিপূর্ণ হয়ে গেছিল কারণ যে বিদ্যালয়ের থেকে আমি আমার শারীরিক এবং মানসিক বিকাশের জন্য শিক্ষা এবং প্রশিক্ষণ পেয়েছি সেই বিদ্যালয় থেকে চির বিদায়ের ক্ষণ এসে পড়েছিল। আমার কাছে আমার বিদ্যালয় জ্ঞান এবং শিক্ষার আধার, আমার স্মৃতিপটে সর্বদাই এই পরিবেশ উজ্জ্বল হয়ে থাকবে। আমার কাছে বিদ্যালয় শুধুমাত্র একটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান না, বরং সামাজিকতা এবং আধুনিক সংস্কৃতির উজ্জ্বল। দৃষ্টান্ত।
সর্বশেষে, আমাদের প্রধান শিক্ষক স্কুলের ইতিহাস সম্পর্কে একটা বক্তৃতা প্রদান করেছিলেন। তার এই বক্তৃতার মধ্যে দিয়ে তিনি আমাদের এমন কিছু নৈতিক কথা বলেছিলেন, যা আমাদের চলার পাথেয় হয়ে উঠতে পারে। তিনি আমাদের চরিত্র ও মানসিকতাকে সুন্দরভাবে গড়ে তােলার জন্য ঐকান্তিক আহ্বান জানিয়েছিলেন। তিনি আমাদের সেবা ও আত্মত্যাগ করার উপর জোর দিয়েছিলেন এবং একই সাথে দেশ ও জাতির জন্য আমাদের আত্ম সমর্পন করতে বলেছিলেন। তাঁর এই উৎসাহজনক বক্তৃতার শেষই অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘােষণা করেছিল।
এর পর আমরা শিক্ষকদের কাছ থেকে আশীৰ্বাদ গ্রহণ করি এবং বন্ধুদের শুভকামনা জানাই। বাড়ী ফেরার সময় আমার দুঃখ হচ্ছিল। এই প্রতিষ্ঠানে আমি আমার জীবনের একটা দীর্ঘক্ষণ অতিবাহিত করেছি, আমি সর্বদাই স্কুলের প্রতি কতৃজ্ঞ থাকব।

Post a Comment

0Comments
Post a Comment (0)

#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !