Monday, 15 June 2020

Bengali Essay on "Childhood Memories", "আমার শৈশব কাল রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

Essay on Childhood Memories in Bengali Language : In this article, we are provoding আমার শৈশব কাল রচনা for students. Bengali Essay on Childhood Memories.

Bengali Essay on "Childhood Memories", "আমার শৈশব কাল রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

আমি আমার পরিবারের প্রথম সন্তান, এবং আমার বাবা-মার বিয়ের সাত বছর পর আমি হয়েছি। বুঝতেই পারছেন তাদের কাছে আমি ছিলাম একটি মূল্যবান রত্নের সমান। আমি প্রচুর পরিমানে ভালােবাসা পেয়েছি এবং আমার চোখ দিয়ে এক ফোটা জল পড়লে আমার মার চোখ দিয়ে দশ ফোটা পড়তাে। যেদিন আমি ধরে ধরে হাঁটতে শিখেছিলাম, সেদিনটা আমার বাবা মার কাছে উৎসবের দিন ছিল। যেকোন ধরনের আওয়াজ আমাকে আকৃষ্ট করত। বেলুন ওয়ালা আমাদের গলি দিয়ে যাওয়ার সময় আমি দৌড়ে তার কাছে চলে যেতাম। আমার মা আমাকে ছােট ছােট দানা ভরা বেলুন কিনে দিতেন। নাড়ানাের সময় এর থেকে সুন্দর আওয়াজ নির্গত হােত। তিনি আমাকে বিভিন্ন বৈশিষ্ট্যের সুন্দর সুন্দর খেলনা কিনে দিয়েছিলেন। পুতুলটি ধরে চাপলে সে কথা বলত। তিন বছর বয়সে আমার বাবা খুব জাকজমক করে আমার জন্মদিন পালন করেছিলেন। তারা আমার প্রথম এবং দ্বিতীয় জন্মদিনও পানল করেছিলেন কিন্তু তখন আমার কোন জ্ঞানই ছিল না। আমার আত্মীয়রাও আমাকে সুন্দর সুন্দর । খেলনা উপহার দিয়েছিলেন।
খেলনা গাড়ীটিকে মেঝেতে ছেড়ে দিলে সেটা খানিকটা এগিয়ে যেত। জোকারে চাবি দিয়ে দিলে সেটা ড্রাম বাজাতে শুরু করত। আমার কাছে এটা ছিল বিস্ময়কর দিন, সেই সময় আমি চঁাদ চাইলেও আমার বাবা মা তা এনে দিতে প্রস্তুত ছিলেন।
একদিন একটা জাদুকর দুটি বাঁদর নিয়ে রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিল। সে আমার দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য বানরের খেলা দেখাচ্ছিল। পুরুষ বানরটি স্ত্রীবানরের প্রেমে পড়েছিল। কিন্তু স্ত্রী বানরটি তাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করেছিল। পুরুষ বানরটি একটি রঙীন জামা পরে তার শ্বশুর বাড়ীতে গিয়ে উপস্থিত হয়। তার এই শ্বশুর বাড়ী যাওয়ার ঘটনা আমি কোন দিন ভুলতে পারব না। জাদুকরদের দেখানাে খেলাও আমার খুব ভালাে লেগেছিল।
পাঁচ বছর বয়সে আমি স্কুলে ভর্তি হয়েছিলাম। আমার বাবা-মা ছাত্রদের মধ্যে মিষ্টি বিতরণ করেছিলেন। আমি একটা নূতন পােশাক পরেছিলাম এবং আমার মা আমাকে যত্ন করে তৈরি করে দিয়েছিলেন। আমার বাবামা আমাকে স্কুলে দিয়ে বাড়ী চলে এসেছিলেন। আমি চিৎকার করে কেঁদেছিলাম কিন্তু সেখানে আমাকে সাহায্য করার জন্য কেউ ছিল না। আমার শিক্ষক এসে আমাকে ভালােবেসে বুঝিয়েছিলেন এবং অন্য ছাত্রদের সাথে বন্ধুত্ব করিয়ে দিয়েছিলেন।
আমি খুব দ্রুত বেড়ে উঠেছি। আমার বন্ধু সংখ্যাও প্রচুর আমি প্রতিবেশীদের সাথে খেলতাম। আমরা যেকোন বাড়ীতে বেল বাজাতাম এবং বাড়ির মালিক দরজা খুলে বেরলে আমরা সেখান থেকে এক ছুটে পালিয়ে যেতাম।
এগুলি ছিল সুখ স্মৃতি। কিন্তু বর্তমানে ভারী বইয়ের ব্যাগ এবং প্রচুর কাজের চাপ ছাড়া আর কিছুই নেই।

SHARE THIS

Author:

I am writing to express my concern over the Hindi Language. I have iven my views and thoughts about Hindi Language. Hindivyakran.com contains a large number of hindi litracy articles.

0 comments: