Sunday, 7 June 2020

Essay on Summer Vacation in Bengali language for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

Essay on Summer Vacation in Bengali language for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

গ্রীষ্মকালীন অবকাশ রচনা: সাধারণত গরমের ছুটি পড়ার প্রায় পনেরাে দিন আগে থেকেই, আমরা পড়াশােনা সম্পর্কিত কোন আলােচনাই করি না। আমি ঘুরতে যাওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের পরিকল্পনা করি, কিন্তু বাংলায় একটা প্রবাদবাক্য আছে দাতা দেন তাে বিধাতা দেয় না। গরমের ছুটি পড়ার পরেই আমার মা খুবই অসুস্থ হয়ে পড়লেন এবং তার যন্ত্রণা খুবই বেড়ে গেলাে, অপারেশন করা জরুরি হয়ে পড়েছিল। আমার শ্রীনগরে ঘুরতে যাওয়ার যে পরিকল্পনা ছিল তা বাতিল হয়ে গেল। এই সিদ্ধান্ত আমাকে অখুশি করেনি কারণ ঘুরতে যাওয়ার থেকে আমার মায়ের শরীর খারাপ অনেক বেশী গুরুত্বপূর্ণ ছিল।
Read also : Essay on Magician in Bengali Language
পরের দিনই মাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। বাবার মুখে একরাশ ভয় এবং মায়ের চোখের জল গলা বেয়ে নামতে দেখেছিলাম। দুর্ভাগ্যবশত অস্ত্রপ্রচার করার পর একটা বিশেষ অসুবিধার সৃষ্টি হয়েছিল। আমি জলখাবার, দুপুরের খাবার এবং রাতের খাবার তৈরি করার দায়িত্ব নিই। আমি আমার ভাই ও বােনকে খাবার দিয়েই হাসপাতালের উদ্দেশ্যে রওনা দিতাম।
Read also : Essay on Farmer in Bengali Language
হাসপাতালের রােগীদের চিৎকার, আর্তনাদ এবং প্রার্থনা আমাকে ব্যথিত করতাে। মায়ের অবস্থা আমাকে আরও বেশী অস্থির করে তুলেছিল। যখন। আমি বাড়ি ফিরতাম তখন মাত্র তিন বছর বয়সী আমার ছােট বােন মার কাছে যাওয়ার জন্য কান্নাকাটি করত। সে দুধ এবং খাবার খেতে চাইতাে না। আমি দু-দিন আমার ভাই বােনেদের স্নানের ব্যবস্থা পর্যন্ত করে দিতে পারিনি। আমাদের জামা কাপড় খুবই নােংরা হয়ে গেছিল এবং রান্না ঘরের অবস্থা ছিল বেহাল, আমাদের ঘরও অগােছালাে ছিল।
Read also : Essay on My Favourite Teacher in Bengali Language
রান্না করা আমার পক্ষে খুবই কষ্টদায়ক ছিল। প্রায়ই খাবার নষ্ট হয়ে যেত। অনেক সময় আমি নিজের হাতও জ্বালিয়ে ফেলেছি। এখন, আমি আমার মায়ের কঠোর পরিশ্রমের মূল্য বুঝতে পেরেছি। আমি যা রান্না করতাম তা আমি নিজেই খেতে পারতাম না।
Read also : Essay on Lottery Winning in Bengali Language
আমি নিজের অবস্থার কথা কাউকেই জানাতে পারিনি। আমার ভাইবােন খুবই ছােট তারা আমাকে যে কোন সুবিধা প্রদান করতে অক্ষম। আমার বন্ধুরা সকলেই ঘুরতে চলে গেছিল। অনেক সময় আমি তাদের খুশীর কথা চিন্তা করতাম এবং নিজের অবস্থার সাথে তাদের অবস্থার তুলনা করতাম। আমার জীবন একটা একঘেয়ে রুটিনের জালে জড়িয়ে পড়েছিল। হাসপাতালে যাওয়া আর রান্না করা ছাড়া কোন কাজ ছিল না, এর ফলে আমি ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলাম। না আমি কোন রহস্যের বই পড়ার সুযােগ পেয়েছি, না সিনেমা হলে যাওয়ার। দিনগুলি এইভাবেই কেটে গেছে আর গরমের ছুটিও শেষ হয়ে গেছে। আমি এতটাই একাকিত্বে ভুগেছি যে আমি আর কোন গরমের ছুটির কামনা করি না।।

SHARE THIS

Author:

I am writing to express my concern over the Hindi Language. I have iven my views and thoughts about Hindi Language. Hindivyakran.com contains a large number of hindi litracy articles.

0 comments: