Monday, 8 June 2020

Essay on India of My Dreams in Bengali Language for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

Essay on India of My Dreams in Bengali Language for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

এই বিশ্বের সকলেই স্বপ্ন দেখে। যে কোন মানুষ সর্বদাই তার ভবিষ্যৎ নিয়েই স্বপ্ন দেখেন। সুতরাং আমারও একটা স্বপ্ন আছে, আর সেটা হল – আমার স্বপ্নের ভারত।
সেই ভারত এমন হবে যেখানে কোন রকম বর্ণভেদ, সাম্প্রদায়িকতা এবং ধর্মীয় অন্ধত্ব থাকবে না। সর্বপ্রথম আমি সাম্প্রদায়িকতার মূলকে উৎপাটন করতে চাই, তা যে আকারেই থাকুক না কেন তাকে সম্পূর্ণ নিশ্চিহ্ন করতে চাই। এর প্রতি অতি ভক্তি থাকার জন্য আজ দেশ দ্বিখণ্ডিত বা চূর্ণবিচূর্ণ হতে বসেছে, ফলে এটিকে শীঘ্রই মুছে ফেলতে হবে।
দ্বিতীয়তঃ আমি চাই ভারতবর্ষ বিজ্ঞান, প্রযুক্তি, বিদ্যা এবং কৃষি সব দিক থেকেই উন্নতি লাভ করুক। আমি ভারতবর্ষকে কুসংস্কার, অন্ধবিশ্বাস এবং বেআইনি অনুভূতির হাত থেকে রক্ষা করে যুক্তি ও বৈজ্ঞানিক চিন্তার ভিত্তিতে স্থাপিত করতে চাই। বর্তমান যুগ হল বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তির যুগ তাই আমি চাই ভারত বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তিতে উন্নতি করুক। যে সমস্ত দেশগুলি সাফল্য এবং সমৃদ্ধি লাভ করতে চায় তাদেরকে বিজ্ঞান এবং তথ্য প্রযুক্তির ক্ষেত্রে উন্নতি করতেই হবে, তা না হলে সেই তার বাসিন্দাদের জীবনযাপনের স্তরকে উন্নত করতে পারবে না।
আমার স্বপ্নের ভারত সেই ভারতই হবে যে ভারত খাদ্যের বিষয়ে স্বনির্ভরতা দেখাতে পারবে। দানা-শস্যের প্রাচুর্যের জন্য সমস্ত বন্ধ্যা ভূমিগুলিকেও শস্য শ্যামলা করে তুলতে হবে। কৃষির দিকে অবশ্যই সতর্ক দৃষ্টি দিতে হবে কারণ ভারতের অর্থনীতির মেরুদণ্ড হল কৃষি। কৃষিজ উন্নতির জন্য পুনরায় আর একটি সবুজ বিপ্লবের প্রয়ােজন, এর ফলে কৃষকেরা উন্নত ধরনের বীজ, সার এবং আধুনিক যন্ত্রপাতি ব্যবহারের সুযােগ পাবে। | এছাড়াও আমি শিল্পের দিক থেকেও উন্নতর দেশকেই দেখতে চাই। এই যুগ শিল্পোন্নতির যুগ, এবং এই যুগেই দেশ উন্নতিও সমৃদ্ধির সর্বোচ্চ স্থানে আরােহন করতে পারে।
আমি ভারতের সৈন্যদলের দিকেও দৃষ্টিপাত করাতে চাই। যে দেশের কোন শত্রু নেই সেই দেশই সর্বাধিক উন্নতি করতে পারে। যেকোন দেশের জন্য সুরক্ষা এবং প্রতিরক্ষা সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এই সাফল্যতা পাওয়ার জন্যে আমাদের প্রতিরক্ষা বাহিনীকে নূতন সাজে সুসজ্জিত করতে হবে কারণ বর্তমান বিশ্বের মানুষরা মিলিটারী শক্তিকে শ্রদ্ধা করে। কার্গিলের যুদ্ধের সময় আমরা প্রমাণ করে দিয়েছি যে আমরা কারুর থেকেই পিছিয়ে নেই কিন্তু মিলিটারি শক্তিকে আরও উন্নত করার জন্য আমাদেরকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।
আমি অজ্ঞতা এবং অশিক্ষাকে নির্মূল করার বিষয়ে খুবই আগ্রহী কারণ এর দ্বারা যে কোন সমাজের ভিত্তি টলে যেতে পারে। জনগণকে উচ্চহারে শিক্ষিত করতে হবে। তবেই আমাদের গণতন্ত্রের প্রধান উদ্দেশ্য সফল হবে এবং প্রত্যেকেই তাদের দায়িত্ব বুঝতে পারবে। মানুষ প্রকৃত স্বাধীনতা ভােগ করতে সক্ষম হবে।
আর একটি বিষয় যা আমি ভারতে দেখতে চাই তা হল, ধনী এবং দরিদ্রের মধ্যে থাকা বৈষম্য দূরীভূত হােক। দেশের অর্জিত অর্থ সমস্ত সমাজের মধ্যে সমান ভাবে বন্টিত হওয়া উচিত। আমি দেখতে চাই যে, ভারতবর্ষের প্রতিটি মানুষের অন্ন, বস্ত্র এবং বাসস্থানের চাহিদা সমানভাবে পূরণ হয়েছে। এই সবলতা পাওয়ার জন্য সমাজের প্রতিবিধান করতে হবে, যার মাধ্যমে অর্থনৈতিক গুণবত্তার যুগে ভারত আবার শ্রেষ্ঠ আসনের অধিকারী হতে পারবে।
যদি এই দিকগুলিতে সতর্ক দৃষ্টিতে তাকানাে যায় তবে বিশ্বের কয়েকটি শক্তিশালী দেশের মধ্যে ভারত অন্যতম বলে পরিগণিত হবে এবং যে সমস্ত দেশগুলি এখনও পর্যন্ত কষ্টের মুখে পড়ে আছে তাদের জন্য পথ প্রদর্শকের কাজ করতে পারবে। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তাঁর কবিতায় যে সফল ভারতের স্বপ্ন দেখেছিলেন, এই ভারতবর্ষ সেই ভারতবর্ষই হতে পারবে -
"Where the mind is without fear and the head is held high, where knowledge is free where the world has not been broken up into fragments, by narrow domestic walls."
Read also : 
Essay on An Ideal Citizen in Bengali Language
Essay on Farmer in Bengali Language
Essay on Summer Vacation in Bengali language 
Essay on My Favourite Teacher in Bengali Language

SHARE THIS

Author:

I am writing to express my concern over the Hindi Language. I have iven my views and thoughts about Hindi Language. Hindivyakran.com contains a large number of hindi litracy articles.

0 comments: