Bengali Essay on "Indiscipline Among Students", "বিদ্যার্থীদের মধ্যে নিয়মনিষ্ঠা অভাব বাংলা অনুচ্ছেদ রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

Admin
0
Essay on Indiscipline Among Students in Bengali: In this article, we are providing বিদ্যার্থীদের মধ্যে নিয়মনিষ্ঠা অভাব বাংলা অনুচ্ছেদ রচনা for students. Bengali Essay on Indiscipline Among Students.

Bengali Essay on "Indiscipline Among Students", "বিদ্যার্থীদের মধ্যে নিয়মনিষ্ঠা অভাব বাংলা অনুচ্ছেদ রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

বর্তমান বিদ্যার্থীদের মধ্যে নিয়ম-নিষ্ঠার অভাব দেখা যায় ফলে একটা বিশাল সমস্যা আমাদের সম্পূর্ণ দেশকে গ্রাস করতে বসেছে। ছাত্র বিক্ষোভ শুধুমাত্র ভারতবর্ষের সমস্যা নয় বরং সারা বিশ্বই এই দূষণে দূষিত। যদি এটিকে সঠিক সময়ে রােধ না করা যায়, তবে এটি জাতীয় সমস্যার রূপ ধারণ করবে। ছাত্র বিক্ষোভ সমাজ ধ্বংসের একটা প্রতিফলন মাত্র। আমরা শুনতে পাই, ছাত্রদল কোথাও আগুন জ্বালিয়েছে এবং এই ঘটনার প্রতিক্রিয়া যে কি চরম হয় তা আমরা খবরের কাগজের মাধ্যমে জানতে পারি। তারা ঢিল বা পাথরের টুকরাে ছোঁড়ে। সেই ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে তাদের উপর 'গুলি বর্ষণ করে বা লাঠি চালায়। যখন তত্ত্বাবধায়কগণ তাদের সামলাতে পারেন না তখনই তা বিরাট অহিংসার রূপ ধারণ করে।
ছাত্ররা মনে করে যে, বিদ্যালয় বা কলেজগুলিতে যে সমস্ত শিক্ষা দেওয়া হচ্ছে সেগুলি কোন কাজে লাগে না। তারা চাকরিও পায় না বা তাদের মধ্যে বিশাল জ্ঞানের সঞ্চয় হয় না। এমনকি কঠোর পরিশ্রমি ছাত্ররাও দুর্বল ছাত্রদের দ্বারা প্রতারিত হয়, কারণ তারা টুকলি করে তাদের থেকে ভালাে নম্বর পেয়ে যায়। সুপারিশের মাধ্যমে কোন কোন ব্যক্তি খুব ভালাে চাকরির অধিকারী হতে পারে। উচ্চমাধ্যমিকের ছাত্রদের সম্পর্কে রাজনীতিবিদরাও যথেষ্ট আগ্রহ প্রকাশ করে, কারণ তারা তাদের প্রতিষ্ঠানে স্কুলের ছাত্রদের অন্তর্ভুক্ত করতে খুবই আগ্রহী হন। ছাত্ররাও মনে করে যে একজন নাম করা রাজনীতি বিদের ছত্রছায়ায় থাকতে পারলে তারাও সম্মানের অধিকারী হয়ে উঠতে পারবে।
শিক্ষকেরাও বিদ্যার্থীদের শিক্ষাদানের ব্যাপারে যথেষ্ট আগ্রহ দেখান । তারা অতিরিক্ত সময়ে স্কুলের বাইরে ছাত্র পড়িয়ে রােজগার করার ব্যাপারে অনেক বেশী আগ্রহ প্রকাশ করেন। বিদ্যার্থীরা স্কুল থেকে শিক্ষা সম্পর্কে বা অন্যান্য ব্যাপারে যথেষ্ট গুরুত্ব অর্জন করাতে না পেরে, তারা সহজ পন্থায় তাদের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চায়। পিতা-মাতারাও তাদের পরিবারকে আরও ভালাে ভাবে প্রতিষ্ঠা করার জন্য পয়সার সন্ধানে ব্যস্ত থাকেন। তাদের কাছে বাচ্চাদের অসুবিধা জানার জন্য খুব অল্পই সময় থাকে। বাচ্চারা ধীরে ধীরে এক অন্ধকার আচ্ছন্ন জগতের মধ্যে চলে যায় এবং তাদের সংশয় দিনে দিনে বেড়ে ওঠে।
১৯৯১ সাল থেকে সরকার নূতন শিক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তুলতে আগ্রহী হয়েছিলেন। পড়াশােনার সাথে সাথে বিদ্যার্থীদের হাতের কাজেও নিযুক্ত করা হয়েছিল, ফলে তারা পড়ার সাথে সাথে রােজগার করতেও সক্ষম হয়ে উঠছিল। শিক্ষকদের বেতনও বৃদ্ধি করা হয়েছিল, ফলে যথেষ্ট শিক্ষিত মানুষেরাও এই জীবিকা গ্রহণে আগ্রহ প্রকাশ করছিলেন। নূতন শিক্ষা ব্যবস্থা কি রূপ ধারণ করবে তা দেখার জন্য আমাদের বেশ কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে।

Post a Comment

0Comments
Post a Comment (0)

#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !