Saturday, 4 July 2020

Bengali Essay on "Examination Day", "পরীক্ষার দিন অনুষ্ঠান রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

Essay on Examination Day in Bengali Language: In this article, we are providing পরীক্ষার দিন অনুষ্ঠান রচনা for students. Bengali Essay on Examination Day.

Bengali Essay on "Examination Day", "পরীক্ষার দিন অনুষ্ঠান রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

আমার পরীক্ষার হলের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে কয়েকটি লাইন লিখতে আমি খুবই আগ্রহ বােধ করছি। ১৯৯৯ সালে আমি প্রথম বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা দিই।
পরীক্ষার আগের দিন রাতে আমি অনেক কিছু পড়েছিলাম। আমার বাবা গভীর রাত পর্যন্ত পড়তে মানা করা সত্ত্বেও আমি প্রায় সারারাত জেগে সম্পূর্ণ কোর্সটি পুনরায় পড়েছিলাম। আমি তার পরামর্শের দিকে ভ্রুক্ষেপ পর্যন্ত করিনি।
প্রায় পরীক্ষা শুরুর মুখে আমি পরীক্ষার হলে গিয়ে পৌছাই সিঁড়ি দিয়ে ওঠার সময়তেই প্রথম ঘন্টা বেজে গেছিল। আমি দৌড়ে ঘরে গিয়ে পৌছাই এবং রােল নম্বর অনুযায়ী সিট খোঁজার চেষ্টা করেছিলাম। পাঁচ মিনিটের মধ্যে প্রত্যেক পরীক্ষার্থী তাদের সঠিক স্থানে বসে পড়েছিল, আমার হৃদস্পন্দন বেড়ে যায় এবং আমি খুবই ঘাবড়ে গেছিলাম। পরীক্ষা হলের অধীক্ষক পরীক্ষার নির্দেশ সম্পর্কে ছাত্রদের বলছিলেন। কোন রকম নিষিদ্ধ কাগজপত্র বা স্লিপ পাওয়া গেলে কি হবে, সে সম্পর্কেও তিনি জানিয়ে দিয়েছিলেন। সুতরাং অনেক ছাত্রই নিজেদের পকেট ঘেটে কাজ-পত্র বার করে এবং তা ফেলে দেয়। তারা তাদের টাকা-পয়সা, রােলনম্বর এবং বাসের পাশ পুনরায় পকেটে রেখে দেয়। কোন প্রশ্নের অশােভনীয় উত্তর সম্পর্কেও অধীক্ষক ছাত্রদের সচেতন করে দেন।
তারপর তিনি প্রশ্নপত্রের খামটি খােলেন। সেই সময় পরীক্ষা হলটি সম্পূর্ণ নিস্তব্ধ ছিল। আমি আরও বেশী ঘাবড়ে গেছিলাম। তারপর, অধীক্ষক পরীক্ষার্থীদের মধ্যে প্রশ্ন পত্র বিতরণ করেন, আমি প্রশ্নপত্র হাতে পেয়ে সামান্য হতভম্ব হয়ে পড়ি। আমি প্রশ্ন পড়ে কিছুই বুঝতে পারছিলাম না। আমি পুনরায় প্রশ্নগুলি ভালাে করে পড়ি। সেই সময় আমি সমস্ত প্রশ্ন বুঝতে পারি এবং কয়েকটি প্রশ্ন আমার কাছে খুব সহজ বলেই মনে হয়েছিল। কয়েকজন পরীক্ষার্থী এদিক ওদিক দেখছিল। কিছু পরীক্ষার্থী লিখতে ব্যস্ত থাকলেও কেউ কেউ পরীক্ষার হলের ছাদের দিকে হা করে তাকিয়ে ছিল। কেউ কেউ নিজেদের মধ্যে ফিসফিস করে কথা বলছিল। একজন পরীক্ষার্থী, অপর একজনেরটা দেখে দেখে লিখছিল, সেটা অধীক্ষকের চোখে পড়ে যায় এবং তিনি দুজনকেই হল থেকে বের করে দেন। অন্য যারা টুকলি করার চেষ্টা করছিল তাদের জন্য এটা একটা সতর্কবাণী কাজ করে। | যখন প্রথম ঘন্টা পড়েছিল ততক্ষণে আমি উত্তর লিখতে শুরু করে দিয়েছিলাম। আমি প্রথমে সহজ প্রশ্নের উত্তর দিয়ে তারপর জটিল প্রশ্নের দিকে হাত দিয়েছিলাম। কিছুক্ষণ বাদে একজন পরীক্ষার্থী তার সীট থেকে পড়ে যায় এবং সে অজ্ঞান হয়ে গেছিল। আমাদের সকলেরই মনাে সংযােগ ভেঙে যায় এবং সবাই সেদিকে আকৃষ্ট হয়। প্রায় সঙ্গে সঙ্গে ডাক্তার এসে তাকে প্রয়ােজনীয় চিকিৎসা প্রদান করে। সে তার জ্ঞান ফিরে পেলেও ডাক্তার তাকে আর চাপ নিতে নিষেধ করে, ফলে সে তার উত্তর শেষ না করেই পরীক্ষার হল ছেড়ে বেরিয়ে যায়।
এর মধ্যেই পরের ঘন্টাটি বেজে উঠেছিল। এখন আর মাত্র আধ ঘন্টা সময় আছে। আমি সমস্ত উত্তর লিখে, উত্তর পত্রটিকে ভালাে করে পড়ছিলাম। আমি ভালাে করে পড়ে নিজের ভুলগুলিকে সংশােধন করার চেষ্টা করছিলাম। কারণ ভুল থাকলে আমার নম্বর কমে যাবে। প্রধান উত্তর পত্রের সাথে আমি অতিরিক্ত পৃষ্ঠাগুলিকে বেঁধে দিয়েছিলাম। তারপরেই শেষ ঘন্টা বেজে উঠেছিল। সঙ্গে সঙ্গে অধীক্ষক আর একটা অক্ষরও লিখতে নিষেধ করেছিলেন। শীঘ্রই তত্ত্বাবােধয়ক সমস্ত উত্তর পত্র সঞ্চয় করে নিয়েছিলেন। সেই সময় আমি খুবই ক্লান্তি অনুভব করছিলাম। শেষ পর্যন্ত আমি পরীক্ষার হল ছেড়ে বেরিয়ে পড়েছিলাম। হয়তাে এই আকর্ষণীয় এবং স্বতন্ত্র অনুভূতি সারাজীবন আমার স্মরণে থেকে যাবে। আমি এই পরীক্ষার সময় যথেষ্ট সাবধানতার সাথে প্রচুর পড়াশােনা করেছিলাম।

SHARE THIS

Author:

I am writing to express my concern over the Hindi Language. I have iven my views and thoughts about Hindi Language. Hindivyakran.com contains a large number of hindi litracy articles.

0 comments: