Friday, 10 July 2020

Bengali Essay on "Impact of Foreign Culture", "বিদেশী সংস্কৃতি প্রভাব বাংলা অনুচ্ছেদ রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

Essay on Impact of Foreign Culture in Bengali Language: In this article, we are providing বিদেশী সংস্কৃতি প্রভাব বাংলা অনুচ্ছেদ রচনা for students. Bengali Essay/Paragraph on Impact of Foreign Culture.

Bengali Essay on "Impact of Foreign Culture", "বিদেশী সংস্কৃতি প্রভাব বাংলা অনুচ্ছেদ রচনা" for Class 5, 6, 7, 8, 9 & 10

জামা কাপড়, বৈদেশিক আচরণ, বিদেশী খাদ্য, বৈদেশিক শিক্ষা এবং সমস্ত বিষয়েই ভারতীয়দের মধ্যে প্রবল আকর্ষণ লক্ষ্য করা যায়। বৈদেশিক নাচ গানের চাপে আমাদের মধুর ভারতীয় সঙ্গীতও চাপা পড়ে যাচ্ছে। মেয়েদের স্কুলরুচি সম্পন্ন আদপ কায়দা এবং নিরস কথাবার্তার জন্য মহিলাদের মধ্যে থেকে সমভ্রম বােধটাই লুপ্ত হতে বসেছে। বিদেশী ভাষায় কথাবলাটা এখন ফ্যাশান হয়ে দাঁড়িয়েছে। আজকের যুব শ্রেণী নিজেদের দেশে ভালাে জীবিকা গ্রহণের পরিবর্তে আমেরিকার চাকর হওয়াকে অনেক বেশী সম্মান জনক বলে মনে করে।

অতিথিদের মনােরঞ্জন করার জন্য সেখানে কিছু সস্তা দরের রেস্তোরাঁ আছে, আধুনিক যুবক-যুবতীরাই সেগুলি নিয়ন্ত্রণ করে এবং উত্তেজিত বাজনার সাথে মাইক হাতে নিয়ে চিৎকার করে। সঙ্গীতের সুর যত বেতাল হবে অতিথিরা তা ততবেশী করে উপভােগ করে। তারা আনন্দে মাটিতে লাফাতে থাকে, তাদের হৃদ স্পন্দন বৃদ্ধি পায় এবং এই সুরের সাথে সাথে তাদের দেহেও উত্তেজিত ভাবে নেচে ওঠে।

জনসাধারণের স্বেচ্ছায় নিজেদেরকে বৈদেশিক দ্রব্যের মধ্যে নিমজ্জিত করে ফেলছে। এই সমস্ত দ্রবের মধ্যে ক্রিস্টালের ঝাল লন্টন এবং আকর্ষণীয় আসবাব পত্র বিশেষ স্থান অধিকার করে আছে, এই গুলির সাহায্যে বাড়ি এবং সরাইখানাগুলি আরও বেশি আকর্ষণীয় হয়ে ওঠে, বেশীর ভাগ সম্মােহক গায়িকা একটি আটো সাটো পােশাক, খুব সুন্দর একটি গাউন, ফতুয়া জাতীয় জামা এবং ঢিলেঢালা প্যান্ট পরিধান করে, এই পােশাকের সাহায্যে তারা পার্সিয়ান রাণী বা আমেরিকান নাগরিকদের মতন হয়ে ওঠে।

অনেকে আবার চাইনিজদের ঢঙে কোন সরাইখানাতে চৈনিক নূতন বৎসর উদ্যাপন করে থাকে। এদের খাদ্য তালিকায় চিনা, জাপানি, আমেরিকা এবং আরবের সুস্বাদু খাবারগুলি অন্তর্ভুক্ত থাকে। এই সমস্ত মানুষেরা হােটেলগুলিকে ম্যাক্সিকান, ফ্রেঞ্চ এবং সুইজ-এর ঢঙে সাজিয়ে তুলতে চায়। সাজসজ্জা, গান এমনকি প্রধান পাচক পর্যন্ত বিদেশ থেকে আমদানি করা হয়।

আমাদের দেশে বৈদেশিক দ্রব্যের এই চাহিদাকে কম করে দেওয়াই বাঞ্ছনীয়। কারণ, যদি আমরা বৈদেশিক সংস্কৃত বা বৈদেশিক অভ্যাসকে রপ্ত করতে চাই তবে আমরা অচিরেই নিজেদের সংস্কৃতিকে হারিয়ে ফেলব। এর উন্নতি আমাদের সভ্যতারজন্য ক্ষতিকারক বলে প্রমাণিত হতে পারে এবং এর সাহায্যে আমাদের সমাজ সম্পূর্ণ পরিবর্তিত হয়ে যেতে পারে।

SHARE THIS

Author:

I am writing to express my concern over the Hindi Language. I have iven my views and thoughts about Hindi Language. Hindivyakran.com contains a large number of hindi litracy articles.

0 comments: